Loading the player...

Now playing: All videos by Fatema Naznin (Asm)

পাঠ্যবই নিয়ে টকশোতে হেফাজতে ইসলামের নেতা মুফতি ফয়জুল্লাহর যুক্তিপূর্ন কথা শুনে সবাই নির্বাক

  • Uploaded 3 hours ago in the category Live TV

    পঞ্চম শ্রেণিতে হুমায়ুন আজাদের ‘বই’ নামক একটি কবিতা ছিল। সেট

    ...

    পঞ্চম শ্রেণিতে হুমায়ুন আজাদের ‘বই’ নামক একটি কবিতা ছিল। সেটা হচ্ছে, যে বই তোমাকে দেখায় ভয়, সেগুলি কোন বই-ই নয়। সে বই তুমি পড়বে না। এখানে কুরআনকে বোঝানো হয়েছে। ৬ষ্ঠ শ্রেণিতে যুক্ত করা হয়েছিল লাল গরুটা। এটা ছোট্ট একটা গল্প। এখানে মুসলিম শিক্ষার্থীদের শিখানো হচ্ছিল গরু হচ্ছে মায়ের মত। অর্থাৎ হিন্দুত্ববাদ শিক্ষা দেয়া হয়েছিল। আমার এই সব বই পড়বো না এবং আমাদের ছেলেদের এই সব বই পড়াবো না। ইন্ডিপেন্ডেন্ট টিভির আজকের বাংলাদেশ অনুষ্ঠানে লালন শাহর দর্শন, রমেশ সেনগুপ্তের মানব দর্শন এবং এস এ আবেদ আলীদের মত লেখকের লেখা কেন বাদ দেয়া হয়েছে এমন প্রশ্নর উত্তরে এ মন্তব্য করেন ইসলামী ঐক্যজোটের মহাসচিব ও হেফাজতের যুগ্ম-মহাসচিবের মুফতি ফয়জুল্লাহ।rnrnতিনি আরো বলেন, আমাদের বইয়ে আগে হজে যাওয়ার কথা ছিল। সেটা বাদ দিয়ে রাঁচি ভ্রমণের প্রবন্ধ যুক্ত করা হয়েছিল। ৭ম শ্রেণিতে যুক্ত করা হয়েছিল হৃদয় নামক একটি কবিতা। যেখানে হিন্দু দেবিদের প্রশংসা করা হয়েছিল। আমাদের ইসলামের ইতিহাস ও ঐতিহ্যের কথা বাদ দিয়ে কেন আমাদের এই সব পড়তে হবে? ৭ম শ্রেণিতে লালু নামক গল্পে শিক্ষার্থীদের শিক্ষা দেয়া হচ্ছিল হিন্দুদের পাঁঠা বলির নিয়ম-কানুন। মুসলমানের সন্তানদের কেন পাঁঠা বলির নিয়ম কানুন শিক্ষা দেয়া হচ্ছিল? পাঁঠা বলি দেয়া এটা কোন মুসলমানের সংস্কৃতি নয়। ৮ম শ্রেণিতে পড়ানো হচ্ছিল হিন্দুদের ধর্মগ্রন্থ রামায়নের সংক্ষিপ্ত রূপ।rnrnতিনি আরো বলেন, ৯ম ও ১০ম শ্রেণিতে পড়ানো হচ্ছিল লালনের গান, সময় গেলে সাধন হবে না। এই গানের ছিল বিকৃত যৌনাচারের কাহিনী। একটা বিকৃত যৌনাচারের গল্প আমাদের সন্তানদের পড়ার জন্য বাধ্য করা হচ্ছিল। যা কোনভাবেই আমাদের সভ্যতা, সংস্কৃতির সাথে যায় না। সরকারের এই সব বাদ দেয়া উচিত ছিল, তারা বাদ দিয়েছে। এই কারণে তাদের সাধুবাদ দেয়া প্রয়োজন।

  • পাঠ্যবই নিয়ে টকশোতে হেফাজতে ইসলামের নেতা মুফতি ফয়জুল্লাহর যুক্তিপূর্ন কথা শুনে সবাই নির্বাক
show more show less